শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo ক্লাইন্ট ফারিয়াকে মামলায় সাহায্য করে ব্লাকমেইলের শিকার আইনজীবী মৃন্ময় কুন্ডু তপু Logo সনাতনী স্বেচ্ছাসেবী ফাউন্ডেশন সর্বদা মানবতার কথা বলে Logo টিআইসিতে শিল্পী রিষু তালুকদারের একক নজরুলের গানে মুগ্ধ দর্শক-শ্রোতা Logo স্বাক্ষর জাল জালিয়াতির মামলায় গ্রেফতার বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী বিশু Logo হবিগঞ্জে দেশের সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা ও শিক্ষিকা রিবন রুপা দাশের রহস্যজনক মৃত্যু: হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন Logo বীরগঞ্জে মাদক বিক্রেতা স্বামী স্ত্রী সহ আটক ৩ Logo রংপুর বিভাগের শ্রেষ্ঠ এএসআই কুড়িগ্রাম সদর থানার শাহিন Logo নড়াইলের লোহাগড়ায় ক্লাইমেট স্মার্ট কৃষি প্রযুক্তি মেলা উদ্বোধন ও প্রিজাইডিং অফিসারদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত Logo নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্গন চেয়ারম্যান প্রার্থী আমিনুল ইসলামের সমর্থকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা Logo ভুট্টার বাম্পার ফলনে লাভের স্বপ্ন দেখছেন,বীরগঞ্জের ভুট্টা চাষীরা

অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েদের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ করতো আশিক

সোনার বাংলা নিউজ / ২৪২ বার পঠিত
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৫৫ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারে জোর করে হোটেলে নিয়ে অষ্টম শ্রেণির স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি মোহাম্মদ আশিক (২৭) কে আনোয়ারা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১৫ এর একটি দল।

আজ ২৮ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার ভোরে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতুরী চৌমুহনীতে তার আত্মীয়ের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আশিক কক্সবাজার শহরের উত্তর নুনিয়াছড়া এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে।

র‌্যাব-১৫ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. খায়রুল ইসলাম সরকার এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

র‌্যাব জানায়, মোহাম্মদ আশিক প্রায়ই এভাবে অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েদের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ করে। সে কিশোর গ্যাং অপরাধী চক্রের সঙ্গে জড়িত। তার বিরুদ্ধে ছিনতাই, চাঁদাবাজির অভিযোগ রয়েছে।

দুপুরে কক্সবাজার র‌্যাব কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মো. খায়রুল ইসলাম সরকার বলেন, ‘গত ১৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টার দিকে ওই স্কুলছাত্রী তার বাড়ির পাশের এক প্রতিবেশির বাড়িতে যাচ্ছিলো। এ সময় আশিক তার সহযোগিদের নিয়ে জোর করে ওই স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায়। পরে কক্সবাজারের কলাতলীর হোটেল-মোটেল জোনের ‘মমস গেস্ট নামক’ নামক হোটেলে নিয়ে দুইদিন আটকে রেখে ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে। পরে ১৫ ডিসেম্বর ওই ছাত্রীকে তার বাড়ির সামনে রেখে কৌশলে পালিয়ে যায় আশিক। এরপর অভিভাবকরা তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।’

তিনি আরও বলেন, গত ১৮ ডিসেম্বর ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা বাদি হয়ে কক্সবাজার সদর থানায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও চারজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় কক্সবাজার শহরের উত্তর নুনিয়াছড়া এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে মো. আশিক (২৭) ও তার মা রাজিয়া বেগম (৫৫), বাবা নজরুল ইসলাম (৬০), ভাই মো. কামরুল (৩৪) এবং শহরের ঝাউতলা গাড়ির মাঠ এলাকার মো. হায়দার ওরফে হায়দার মেম্বারের ছেলে রিয়াজ উদ্দিন (৪০) কে আসামি করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD